অপেক্ষা

২১ ডিসেম্বর, ২০১২
শুক্রবার, রাত ৮।


অপেক্ষা করছি।
একটা সময়ের।
যখন চেষ্টা করেও তোমাকে মনে করতে
পারবোনা। যখন আর আমার শ্বাসে
তোমার ঘ্রাণ আসবেনা। অপেক্ষা করছি-
কখন আর মনের খুব গভীরেও
তোমার দেয়া অবহেলাদের
খুজে পাবোনা আমি।
জীবনের কিছুই বুঝিনি কখনো।
আর বুঝতেও চাইনা। অপেক্ষা করছি তাই-
জীবন যাতে নিজের পোশাকটা
খুলে না ফেলে আমার সামনে।
সহ্যের সীমারা ভেঙে যায় যায় অবস্থা।
অপেক্ষার বাধ বড় নড়বড়ে হয়ে
যাচ্ছে। তবুও দাতে দাত কামড়ে
আমি বসে আছি। আমাকে কখনো বসে
থাকতে দেখেছো তুমি?
নিজেকে কখনো দেখা যায়না;
গেলে নিশ্চয় দেখতে পারতাম-
কী আমার শান্ত চোখে অদৃশ্য
হয়ে আছে কতো গভীর অবহেলার পাহাড়,
কতো অভিমান নিয়ে শুকিয়ে গেছে
চোখের তীর…

Leave a Reply