হলুদ রঙের জ্বালা

লেখা হয়েছে ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৩


বিরহী ফাগুনে শহরজুড়ে ছড়িয়ে গেছো তুমি।
বাসন্তি হলুদে তুমি মিশে গেছো
অগনন তরুনীর দেহে। হলুদাভ রঙে।
ভালোবাসা হাত ধরাধরি করে বেঁচে থাকছে
কারো। হলুদ রঙের আলোয় ঝাপসা
দেখেছি তোমাদের পৃথিবীকে। ভালোবাসা
এখন আর আমার ধার ধারেনা।
আমার শূন্য খসখসে হাতে প্রজাপতির
ছিড়ে যাওয়া ডানা উড়ে এসেছিলো।
আমি ভাবিনি তা তোমার শেষ চুমুর
ধ্বংসাবশেষ।

তবুও সে ডানায় বড়

স্পষ্ট প্রকাশ ছিলো তোমার ঠোটের।
তোমার জিভের। আর অবশ্যই তোমার
শ্বাসের ঘ্রাণের। আমার মরে যাওয়া
ভালোবাসা শুকিয়ে কাঠ হয়ে যায়নি।
আবার নতুন প্রেম খেলায় নাচার
মতো তরতাজাও রয়নি। এমনই
নাম পরিচয়হীন ভালোবাসার ছায়া
নিয়ে বেঁচে থাকছি বড় অকল্পনীয় যাতনায়।
তোমাকে ঝেড়ে ফেলতে পারিনি
আমার নাক মুখ আর শরীর থেকে।
তুমি রয়ে গেছো অদৃশ্য অথচ দাপুটে
অস্তিত্ব নিয়ে। অনুভূতির প্রতিটি স্তরে
তুমি এখনো এতোটাই জীবন্ত যে,
সারাদিনের হলুদ রঙের জ্বালায়
জ্বলেও মনে হয়না তুমি নেই, তুমি থাকোনা…
মনে হয়- সারাদিন তো তোমায় নিয়েই
হেঁটে বেড়ালাম!

Leave a Reply